দুনিয়ার সবচেয়ে পুরোনো আর বড় বৌদ্ধ মন্দির “বড়বুদুর”, ইন্দোনেশিয়া

“বড়বুদুর”‘ নবম শতকের একটি বৌদ্ধ মন্দির যা, ইন্দোনেশিয়ার সেন্ট্রাল জাভার মাগেলাং এ অবস্থিত। এই বৌদ্ধ মন্দিরটি ছয়টি বর্গাকৃতির স্তর দ্বারা গঠিত যার চুড়া তিনটি গোলাকৃতির স্তর বিদ্যমান।

এই বৌদ্ধ মন্দিরটি ২,৬৭২ টি পাথরের মূর্তির শ্রেণি এবং ৫০৪ টি বুদ্ধ মূর্তি দ্বারা সুশোভিত। এই প্রধান গম্বুজটি মন্দিরের শীর্ষ স্তরের মধ্যভাগে অবস্থিত এবং এর চারপাশে ছিদ্রযুক্ত স্তুপার মধ্যে ৭২ টি বুদ্ধ মূর্তি বিদ্যামান। বড়বুদুর বিশ্বর বৃহত্তম বৌদ্ধ মন্দির।

বড়বুদুর মন্দিরটি নবম শতকের সাইলেন্দ্রা’র শাসনামলে স্থাপিত হয়। এই স্থাপনায় তৎকালীন ভারতীয় স্থাপনা শিল্পের প্রভাব লক্ষ্য করা যায়। এই মন্দিরটি ভারতীয় গুপ্ত শাসনামলে স্থাপিত

বড়বুদুর মন্দিরে সু-দৃশ্য বুদ্ধ মূর্তি। ছবিঃ অনলাইন
বড়বুদুর মন্দিরে সু-দৃশ্য বুদ্ধ মূর্তি। ছবিঃ অনলাইন

বিভিন্ন বৌদ্ধ মন্দিরের পাশাপাশি হিন্দু মন্দিরেরও প্রভাব লক্ষ্য করা যায়। বিশেষজ্ঞদের মতে, বড়বুদুর মন্দিরটি নবম শতকে নির্মিত এবং পরবর্তীতে ১৪ শতকে হিন্দু সাম্রাজ্যের পতনের পর এই মন্দিরটি পরিত্যক্ত হয় এবং তখন জাভায় মুসলিম সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠিত হয়। বড়বুদুর অনেক আগে থেকেই বিভিন্ন অংশ পুনঃনির্মানের মাধ্যমে সংরক্ষিত হতে থাকে। সর্ববৃহৎ পুনঃনির্মান কাজ সম্পন্ন হয় ১৯৭৫ থেকে ১৯৮২ সালে, যা ইন্দোনিয়া সরকার ও ইউনেস্কো যৌথভাবে পরিচালনা করে। এর পরেই ইউনেস্কো এই স্থাপনাটিকে বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান হিসেবে তালিকভূক্ত করে। বড়বুদুরে এখনো সন্ন্যাসীরা ব্যবহার করে। বছরে একবার এই মন্দিরের “ভেসাক” নামে একটি অনুষ্ঠান পালিত হয়। এই স্থাপনাটি ইন্দোনেশিয়ার একমাত্র বহুল পরিদর্শনের স্থান।- সূত্রঃ ইন্টারনেট অবলম্বনে।

আরো পোস্ট দেখুন

comments