কিভাবে Non Hosted Google Adsense Approval পাওয়া যায়-একসাথে অনেকগুলো প্রশ্নের উত্তর

শুধুমাত্র কিভাবে Non Hosted Google Adsense Approval পাওয়া যায়, সেটা নিয়ে সকল প্রস্ন করতে পারবেন। যাদের Non Hosted অ্যাডসেন্স এপ্রুভ আছে, তারা প্রস্ন করবেন না। একটি ফেসবুক গ্রুপ Adsense & Domain Parking এর প্রধান এ্যাডমিন রুবেল এসবিএস তিনি একটি ইভেন্টের মাধ্যেমে উত্তর দিয়েছিলেন Non Hosted Google Adsense Approval নিয়ে দুনিয়ার যতসব প্রশ্নের উত্তর, এবং আমাদের করণীয়ঃ

Non Hosted Google Adsense Approval

১। Application করার পূর্বে নুন্যতম কতগুলো আর্টিকেল থাকতে হয়???

উত্তরঃ ৩০-৪০-৫০ টি আর্টিকেল হলে ভালো হয়। তবে বেশি হলে আরও ভালো।
২। About Us, Contact, Privacy & Policy বাদে আরো কি কি এ্যাড করতে হয়??? বা থাকলে ভালো হয়??

উত্তরঃ About Us, Contact, Privacy & Policy & DMCA তো থাকবেই। পাশাপাশি খেয়াল রাখবেন কোন ক্যাটাগরি জেনো ফাকা না থাকে, তবে প্রতিটা ক্যাটাগরি তে মিনিমাম ৫-৭ টা কনটেন্ট রাখতে হবে। তাহলে বেশি ভালো হবে এবং Non Hosted Account Approve পেতে আরো বেশী সহজ হবে।
৩। Google Adwords দিয়ে Google এ ব্যানার বিজ্ঞাপনের মাধ্যেমে কি Google Non Hosted Account এর সুবিধা নেওয়া যেতে পারে কিনা??? অথবা Adsense Approve নেওয়ার জন্য কেমন priority থাকতে পারে?

উত্তরঃ Google Adwords দিয়ে যেকোনো বিজ্ঞাপন দিলেও অ্যাডসেন্স এপ্রুভাল এর জন্য কোন এক্সট্রা সুবিধা নাই। গুগলের এমন কোন নীতিমালা নেই।
৪। Content Image যদি Google Search এর মাধ্যেমে নিয়ে ব্যবহার করা হয় তাহকে কি Approve পাওয়া সম্ভব? নাকি একদম Unique Image and Unique Article Publish করতে হবে?

উত্তরঃ Unique Image হলে সবচেয়ে বেশী ভালো হয়। তবে গুগল থেকে কখনোই কপিরাইট ইমেজ নিবেন না, কোন ইমেজ নিলেও টাইটেল এবং সাইজ পরিবর্তন করে দিবেন তাহলে কোন সমস্যা হবে না।
৫। কত Word এর আর্টিকেল থাকলে ভালো হবে?

উত্তরঃ প্রতিটি আর্টিকেল ৪০০-৫০০ ওয়ার্ড হলে ভালো হয়। বেশি হলে তো আরও ভালো।
৬। Google Adsense এ Apply করার আগে কি কি Check List তৈরি করা দরকার বলে আপনি মনে করেন???

উত্তরঃ Google Adsense এ Apply করার আগে অবশ্যই কিছু Check List তৈরি করা দরকার smile emoticon যেমন…
• সাইটের সকল পোস্ট ৮০-৯০ % % ইউনিক কিনা এবং গুগল পলিসির ভিতরে আছে কিনা চেক করে নিতে হবে।
• ** সাইটের সকল গুরুত্বপূর্ণ পেজ ঠিক আছে কিনা চেক করতে হবে।

• *** সাইটের পোস্ট ৪০-৫০ টা ঠিকমতো ইনডেক্স হচ্ছে কিনা, ওয়েবমাস্টার টুলস এ দেখতে হবে
• **** সাইটের ডিজাইন ইউজার এবং এসইও ফ্রেন্ডলি কিনা সেটা চেক করতে হবে।
• ***** সাদা সিদে ন্যাভিগেশন এবং লেয়াউট এ সব দরকারি জিনিস রাখতে হবে।
• ****** সার্চ ইঞ্জিনে কিছু Organic Keywords এ টপে Rank করালে এক্সট্রা পাইরটি পাওয়া যাবে। (যদিও Content is BIG King)
এইসব কিছু ঠিকমতো চেক করে ৫০-৬০ দিন বসয়ের একটা সাইট দিয়ে এপ্লাই করলে ১০০ % শিওর প্রথম চান্সেই এপ্রুভ পাওয়া সম্ভব।

৭। গুগোল  Non Hosted Adsense পেতে সাইটের বয়স কত লাগবে ? কতগুলো পোষ্ট আর কি রকম এসইও করা লাগবে ?

গুগল এর মেইন শর্ত হচ্ছে হাই কুয়ালিটি ভালো মানের কনটেন্ট এবং ১ টা টপ লেভেল ডোমেইন দিয়ে সাইট বানাতে হবে। তারপর সাইটে ৪০-৫০ দিন সময় নিয়ে ৪০-৫০ টা ইউনিক আর্টিকেল পাবলিশ করতে হবে। সাইটে About, Privacy, Contact us & DMCA পেজ গুলো ঠিক মতো পাবলিশ করতে হবে। সাইটের সকল পোস্ট Google Webmaster এ সাবমিট করতে হবে। তারপর হালকা পাতলা সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করুন। তারপর সাইটের বসয় ৫০-৬০ দিন হলে গুগল অ্যাডসেন্স এপ্লাই করুন। এরপর অ্যাডসেন্স এপ্রুভ হতে সময় লাগবে না।

৮। Google Adsense থেকে কিভাবে টাকা উত্তোলন করা যায়?

উত্তরঃ  ২০১৩ সালের ডিসেম্বরের আগ পর্যন্ত আমরা বাংলাদেশের সবাই চেক দিয়ে টাকা ক্যাশ করাতাম। এবং এমতবস্থায় মাস খানিক সময় লাগতো টাকা ক্যাশ করতে। কিন্ত এখন EFT যাকে বলা হয় Electronic Fund Transfer যা একপ্রকার Wire Transfer এর মত বললেই চলে। এবং সরাসরি ৪-৫ দিনেই টাকা ব্যাংক এ চলে আসে। আমি ডাচ বাংলা ব্যাংক দিয়ে টাকা উত্তোলন করি অনেকেই ব্র্যাক দিয়েও টাকা উত্তলন করে কারো কোন সমস্যা হচ্ছে না।

আর্টিকেলটি যদি আপনার অনেক বেশী ভালোলেগে থাকে তাহলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

আরো পোস্ট দেখুন

comments