ভুমিকম্পের সময় কি করবেন

Screen Shot 2012-10-04 at 3.29.17 PMনেপালে হয়ে গেল ৭.৯ মাত্রার ভুমিকম্প। এই ভুমিকম্প ভারত ও বাংলাদেশেও অনুভুত হয়েছে। নেপালে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৯০০ জন নিহত হয়েছেন। আর বাংলাদেশে নিহতের সংখ্যা প্রায় ৫ জন। ভুমিকম্প এখন বাংলাদেশে প্রায় ই ঘটে থাকে। আর বলা হয়ে থাকে ছোট ছোট ভুমিকম্প বড় ধরনের ভুমিকম্পের আভাস। যদিও সবসময় এরকম হয় না। আমাদের উচিত ভুমিকম্পের সময় মাথা ঠাণ্ডা রেখে পদক্ষেপ নেয়া। ভুমিকম্পের সময় কি করবেন আসুন এক নজরে জেনে নেইঃ

 

১. ভুমিকম্পের যেহেতু কোন পূর্বাভাস দেয়া যায় না তাই সবসময় আমাদের সচেতন থাকতে হবে। ভুমিকম্প হচ্ছে টের পেলে সাথে সাথে বারই থেকে বেরিয়ে ফাকা জায়গায় চলে যান। সম্ভব না হলে বাড়িতেই সক্ত টেবিল, খাটের নিচে আশ্রয় নিন।

২. গাড়ি চালানোর সময় ভুমিকম্প হলে গাড়ি থামিয়ে রাখুন। বড় কোন ভবনের পাশে বা কোন ব্রিজে গাড়ি থামাবেন না।

৩. অনেকেই আছেন ভুমিকম্পের সময় উত্তেজিত হয়ে পরেন। আসলে ভুমিকম্পের সময় উত্তেজিত হওয়া স্বাভাবিক ব্যাপার। তবুও স্বাভাবিক থাকার চেষ্টা করুন। মনে রাখবেন আপনি অতিরিক্ত উত্তেজিত হয়ে গেলে আপনি ভুল কাজটি করে ফেলবেন।

৪. অনেকেই বিল্ডিং এর ছাদ থেকে লাফিয়ে পরেন। ভুলেও এই কাজ করবেন না। এতে করে আপনার বাঁচার সম্ভাবনা থাকলেও আপনি নিজেই নিজের মৃত্যু ডেকে আনবেন।

৫. কখনই লিফট ব্যবহার করবেন না। সিরি ব্যবহার করুন। সিরিতে আশ্রয় নিবেন না। সিরি দিয়ে নামার সময় তাড়াহুড়ো করবেন না। এতে আহত হবার সম্ভাবনা ১০০%।

৬. টাকা পয়সা বা অনঙ্কার নেবার চেষ্টা করবেন না। আগে জীবন তারপর সব।

৭. ভুমিকম্প টের পেলে আপনি যখন বিল্ডিং থেকে নামবেন তখন সম্ভব হলে “ভুমিকম্প ভুমিকম্প” চিৎকার করতে করতে নামুন। এতে করে যারা ভুমিকম্প টের পায়নি তারাও নিচে নামার সুযোগ পাবে।

৮. বড় ভুমিকম্প হওয়ার পর একটা ছোট ভুমিকম্প হয়ে থাকে। এটাকে (After Shock) বলা হয়। তাই বড় ভুমিকম্পের পর নির্ভার না হয়ে প্রস্তুত থাকুন ছোট খাট আরেকটি ভুমিকম্পের জন্য।

৯. সাহস হারাবেন না। সৃষ্টিকর্তাকে স্মরণ করুন।

 

ফেসবুকে আমি ঃFA Shopnil

আরো পোস্ট দেখুন

comments