ড্রপবক্সে ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের ব্যাকআপ নেওয়ার পদ্ধতি

আমরা কেউই আমাদের ব্লগের বা ওয়েবসাইটের এতো কষ্টের তথ্য যা সাইটে রেখেছি তা হারাতে চাইনা। কিন্তু আপনার ওয়েব সাইটটি যদি ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয় বা হ্যাক হয়ে যায়? অথবা আপনার হোস্টিং সার্ভারে যদি কোন গোলমাল দেখা দেয় তাহলে কি হবে?

আপনি যদি একটি ব্যাকআপ না রাখেন এটা ফিরে পাওয়া কঠিন হবে,  একটি ব্যাকআপ আপনাকে এই বিপদ থেকে সুরক্ষা দিতে পারে !

ব্যাকআপ আপনাকে অবশ্যই রাখতে হবে। এটা যে কোন ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের জন্য অত্যন্ত জরুরী। সেই সাথে আপনাকে এও ঠিক করতে হবে আপনি কোথায় আপনার ব্যাকআপ রাখবেন। অনেক ওয়েবসাইট মালিকরা তাদের ব্যাকআপ সার্ভার হোস্টিং এ রাখে। কিন্তু আমি মনে করিনা এটি কোন ভালো আইডিয়া কারণ সার্ভারে ক্র্যাশ হতে পারে।

ক্লাঊড ষ্টোর আপনার ব্যাকআপ ফাইল সংরক্ষণের সবচেয়ে ভালো সমাধান হয়ে, এটি নির্ভরযোগ্য, নিরাপদ এবং ব্যবহার করা সহজ।

ড্রপবক্স, অ্যামাজন S3, iCloud, Box.net ইত্যাদি জনপ্রিয় প্রভাইডার যেখানে আপনি আপনার ব্যাকআপ ফাইল রাখতে পারবেন। আজ আমি ড্রপবক্সে কিভাবে ফাইলের ব্যাকআপ নিতে হয় তা দেখাবো। ড্রপবক্স একটি জনপ্রিয় ক্লাঊড স্টোরেজ সার্ভিস। এখানে আপনি আপনার ফাইল রাখতে এবং যে কোন জায়গা থেকে ঐ ফাইল অ্যাক্সেস করতে পারবেন।


file-(1)

 

এটি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগের জন্য একটি অসাধারণ ব্যাকআপ সমাধান। ড্রপবক্স বিনামূল্যে 2GB জায়গা দেয়। আপনি অন্যদের রেফার থেকে আরও 16 গিগাবাইট ফ্রি পেতে পারেন। আপনার যদি আরও স্পেস লাগে আপনার ড্রপবক্সকে আপগ্রেড করে নিতে পারেন।

ওয়ার্ডপ্রেস সাইটের ব্যাকআপ ড্রপবক্সে নেওয়ার প্রক্রিয়াঃ

file

সৌভাগ্যক্রমে, ওয়েবসাইটের ব্যাকআপ স্বয়ংক্রিয়ভাবে ড্রপবক্সে নেওয়ার জন্য প্রচুর ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন আছে।  WordPress Backup to Dropbox এই প্লাগিনটি ব্যাকআপ নেওয়ার জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত। এটি ওয়ার্ডপ্রেস ডাটাবেস এর (পোস্ট, মন্তব্য ইত্যাদি) এবং wp-content ফোল্ডার এর (থিম, প্লাগিন, ছবি ইত্যাদি) স্বয়ংক্রিয়ভাবে ব্যাকআপ নিতে পারে। 

নিচে প্লাগিনটি সেট আপ করার প্রক্রিয়া দেয়া হোড – 

১। আপনার যদি ড্রপবক্স অ্যাকাউন্ট না থাকে, Dropbox.com এ গিয়ে সাইন আপ করুন।

২। এবার আপনার ড্রপবক্সের অ্যাকাউনটে লগ ইন করুন, তারপর প্লাগিনে চলে যান। এরপর সার্চ করুন  ‘WordPress Backup to Dropbox’ এই প্লাগিনটি। এরপর ‘Install Now’ বাটনে ক্লিক করে ইন্সটল করুন এবং একটিভ করে নিন।

৩। আপনার প্লাগইনটি সক্রিয় করলে, আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ড্যাশবোর্ড অধীনে ‘WPB2D’ নামে একটি নতুন মেনু বিজ্ঞপ্তি পাবেন। WPB2D মেনুর উপর কার্সর রেখে , ‘Backup Setting’এ ক্লিক করুন।

WPB2D

৪। তারপর এটি আপনার ড্রপবক্স অ্যাকাউন্টের সাথে প্লাগিনটি অনুমোদন করার অনুরোধ জানাবে। শুধু ‘Authorize’ বাটনে ক্লিক করুন।

Authorize-Dropbox-account

৫। তারপর একটি নতুন উইন্ডো আসবে এবং ড্রপবক্স এক্সেস এর অনুমতি চাইবে। ‘Allow’ বাটনে ক্লিক করুন। WordPress Backup to Dropbox Plugin একবার ড্রপবক্স এর সাথে সংযুক্ত হলে, এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ‘wpb2d’ নামে ব্যাকআপ ফোল্ডার তৈরি করে সব ব্যাকআপ ফাইলে সংরক্ষণ করবে।

Allow-Dropbox

৬।এখন ‘Backup Setting’ এ ফিরে যান এবং আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী সেটিং কনফিগার করুন।

# Store backup in a subfolder of the wpb2d app folder: আপনি একই ড্রপবক্স অ্যাকাউন্ট থেকে একাধিক সাইট ব্যাক আপ  নেওয়ার পরিকল্পনা করে থাকেন, তাহলে এই বক্স চেক করুন এবং সাবফোল্ডার এর একটি নাম দিন।

#Day and Time: ড্রপবক্স ব্যাকআপ নেওয়ার দিন এবং সময় নির্ধারণ করুন। আপনি যদি একটি বড় ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগ চালান। সপ্তাহের একটি দিন চয়েস করুন যেদিন আপনি কম ট্রাফিক পেতে পারেন।

# Frequency: ড্রপবক্স ব্যাকআপ কখন কখন করবে সেটি সেট করুন। আপনি সপ্তাহের একদিন বাছাই করতে পারেন।

  # Excluded Files and Directories: আপনি যে ফাইল ও ডিরেক্টরিগুলি থেকে ব্যাকআপ নিতে চান না সেগুলি নির্বাচন করুন। সাধারণত আপনি ‘WP- অ্যাডমিন’ বাদ করতে পারেন। আপনি ক্যাশে ফোল্ডার বাদ করতে পারেন। বেশিরভাগ সময়ে, এগুলি  wp-content / ক্যাশে / wp-content / tmp / wp-content / W3TC / ইত্যাদি নামে থাকে।

file-(2)

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ফোল্ডার ‘wp-content’ এখানে আপনার সবকিছু আপলোড, থিম, প্লাগিন ইত্যাদি রয়েছে । এটি কখনই বাদ দেয়া যাবেনা।

‘Save Changes’ ক্লিক করুন এবং এটি আপনি পরবর্তী ব্যাকআপ সময়সূচী সময় প্রদর্শন করবে।

এখন আপনার প্রথম ব্যাকআপ নেওয়ার সময় হয়েছে। শুধু ‘WPB2D’ মেনুর অধীনে ‘Backup Monitor’ এ ক্লিক করুন. তারপর ‘Start Backup’ এ ক্লিক করুন।
Start-Backup

এটা আপনার সাইটের আকারের উপর নির্ভর করে সময় (হয়তো বেশ কয়েক ঘন্টা) নিতে পারে। একবার ব্যাকআপ সম্পন্ন হওয়ার পরে, আপনার ড্রপবক্স অ্যাকাউন্টে লগইন করে ব্যাকআপ পরীক্ষা করুন।  

 

আরো পোস্ট দেখুন

comments