আপনি আপনার চমৎকার আইডিয়া পাবেন কোথায়?

আপনি সম্ভবত মনের মধ্যে অন্তত একটি হলেও আইডিয়া রাখেন যে আপনি আপনার জীবনে কিছু একটা করতে চান, যদি না হয় তা হলে এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে আপনাকে একটি চমৎকার আইডিয়া দিতে চাই, যাহাতে আপনি কিছু একটা করার অনুপ্ররনা খুঁজে পান আপনার জীবনে। আপনার আইডিয়ার প্রতি বিরক্ত হবেন না, নিজের আইডিয়াকে কখনও এমন ছোট করে দেখবেন না যে আপনি কিছুই করতে পারবেন না, বরং এটাই চিন্তা করুণ যে, কিভাবে একটা খারাপ আইডিয়াকে একটা চমৎকার আইডিয়াতে রূপান্তরিত করা যায়। নিজের আইডিয়া নিয়ে এগিয়ে যান, ভালো কিছু করার প্রত্যয় নিয়ে আপনিই হাঁটবেন বহুদূর।

Good Idea

সুতরাং আইডিয়াগুলো কোথা থেকে আসতে পারে তা নিয়ে শুরু হউক আমারদের পরের স্টেপঃ

১। আপনার বিশ্বঃ

এই আপনার দৈনন্দিন জীবনে স্বতঃস্ফূর্ত আইডিয়া যা আপনাকে প্রতিদিন আঘাত করে। হয়তো মাঝে মাঝে এই জন্য আপনি অনেক বেশি আঘাতপ্রাপ্ত হন। আর সেই আইডিয়া কিভাবে বাস্তবায়ন করবেন সেই নিয়ে আপনি পরে যান নানা দুশিন্তায়। দেখুন আপনি যদি একটি জিনি মাথায় রাখেন তাহলে দেখবেন, রান্না করার জন্য আপনার কি কি দরকার হতে পারে? তা যদি আপনি পরিপূর্ণ করতে পারেন তাহলে দেখবেন আপনি ভালো করে রান্না করতে পারবেন। আর ঠিক তেমনি আপনি যে আইডিয়া নিয়ে প্রতিদিন চিন্তা করতে থাকেন, তা বাস্তবায়ন করার জন্য কি কি জিনিসের প্রয়োজন হতে পারে তা নিয়ে যদি আপনি একটু চিন্তা করেন তাহলেই কিন্তু সম্ভব আপনাকে দিয়েই সেখান থেকে ভালো কিছু একটা করার।

আইডিয়া থেকে প্রশ্ন আসলেই বুঝবেন আপনি এগিয়ে যাওয়ার পথেই হাঁটছেন। এবং সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে আপনি নিজেকে খুঁজে পাবেন সহজেই যা থেকে আপনি অনুপ্রাণিতও হবেন না তা কি আপনি বলতে পারবেন? আপনি হয়তো এরুপ চিন্তা করছেন, আপনার আইডিয়া দিয়ে কিছুই হবে না, অনেক ফালতু একটা আইডিয়া, এটা অর্জন করার জন্য অনেক টাকার দরকার, আর এই আইডিয়া দিয়ে ব্যবসা করা সম্ভব না ইত্যাদি ইত্যাদি। কিন্তু আপনি যখন একবার শুরু করবেন দেখবেন আপনি নিজেই একটা সুযোগ তৈরি করেছেন কিভাবে আপনি নিজেই জানেন না। আর এটাই হচ্ছে বাস্তবটা যা আপনাকে পথ দেখাবেই দেখাবে। আর তাহলেই দেখবেন আপনি বাস্তব সম্ভাবনাময় কিছু আইডিয়া খুঁজে পাবেন সহজেই।

২। আপনার খারাপ আইডিয়াঃ

আপনি দেখবেন, আশেপাশের অনেকেই সব সময় কিছু না কিছু দিয়ে আমাদের অনুপ্রাণিত করে থাকে। আর বাস্তবটা হচ্ছে আমরা অনেকেই বদ্ধ হাসতে হাসতে বলি অবাস্তবিক, ফালতু খালি সারাদিন খারাপ আইডিয়া দিয়ে ঘোরাফেরা করে। আপনার যেমন খারাপ আইডিয়া আপনার আশেপাশে ঘুরবে, ঠিক তেমনি দেখবেন ভালো আইডিয়াও আপনার জন্য থাকবে। যখন যেভাবে আপনার মাথায় যে ধরণের আইডিয়া আসুক না কেন সবকিছু আপনার মোবাইল, নোটবুক, ল্যাপটপে তা নোট করার চেষ্টা করুণ, তাতে হয়তো আপনার আশেপাশের অনেকেই আপনাকে নিয়ে হাঁসতেম গাইতে পারে, তা নিয়ে কোন সময় মনে হতে পারে আপনি অনেক বোকা অথবা বিশাল কেউ একজন। আর একসময় যখন আপনি সময় পাবেন ওই লিস্ট থেকে একটা একটা করে দেখতে শুরু করুণ, সেই সময় দেখবেন ওই সব ফালতু, অবাস্তবিক আইডিয়া থেকেই ভালো আইডিয়া পেয়ে গেছেন।

৩। বন্ধু কিংবা পরিবারঃ

আপনার বন্ধু বান্ধব কিংবা পরিবারের কারো কাছে হয়তো আপনি আপনার ব্যবসার আইডিয়ার জন্য সহযোগিতা পাবেন না ঠিক, কিন্তু তাদের প্রতিদিনের সমস্যার সমাধান খুব্জে দিতে পারলে কি হতে পারে? তাদের সমস্যার সমাধান থেকেই হয়তো আসতে পারে নতুন কিছু, পেতে পারেন নতুন কোন আইডিয়া, তখনই দেখবেন পেতে পারেন আপনার দিগন্তের নতুন এক স্বপ্নিল ঠিকানা। আর সেখান থেকেই হয়তো আপনার নতুন যাত্রা শুরু হয়ে যেতে পারে।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, সবসময় আপনার  আইডিয়া লিখে রাখুন……আপনার ফোন, ট্যাবলেট, অথবা আপনার নোটবুকে, আপনার সর্বশ্রেষ্ঠ আইডিয়া, সেই সাথে ছোট ছোট খারাপ আইডিয়াগুলোও লিখে রাখুন। আর দেখবেন কোন না কোন সময়, কোন না কোন দিন আপনার আইডিয়া হিট করবেই। আর তখন দেখবেন, আপনার চিন্তা দ্রুত এবং খুবই পরিকল্পিতভাবে আসা শুরু করবে।

আর্টিকেলটি ভালোলাগলে শেয়ার করতে ভুলবেন না আশাকরি

আরো পোস্ট দেখুন

comments