এই প্রচণ্ড গরমে ত্বকের যত্নে তরমুজের স্কিন কেয়ার প্যাক

watmelon HairPack

(SourceTune.Com): গরমকাল মানেই চারপাশটা কেমন একটা ভ্যাপসা পরিবেশ আর তার সাথে পাল্লা দিয়েই প্রচণ্ড গরম আর ঘাম। গরমে আমাদের শরীরে সবচেয়ে ক্ষতির সম্মুক্ষীন হয় যে অঙ্গটি সেটি হল আমাদের ত্বক। আমাদের ত্বকে রয়েছে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ছিদ্র আর ঘাম ও তেলগ্রন্থি। এই গ্রন্থিগুলো ঘাম, তেল, অপ্রয়োজনীয় পদার্থ ঘাম আকারে দেহ থেকে বের করে দেয়। রোদ ও গরম বেশি হলে এই গ্রন্থি ও ছিদ্র দিয়ে দূষিত পদার্থের সঙ্গে প্রয়োজনীয় লবণ, পানি দেহের বাইরে চলে যায়। পরিণামে প্রতিটি অঙ্গে রক্ত চলাচলে ব্যাঘাত ঘটে যার প্রভাবে আমাদের ত্বকে বাজে প্রভাব পড়ে। এ কারনেই গরমে আমাদের স্কিন প্রবলেম গুলো বেড়ে যায়, যেমন ব্রণ, ফুসকুড়ি, ত্বকের অ্যালার্জি, ঘামাচি, রোদে পুরে ত্বক তামাটে হয়ে যাওয়া ইত্যাদি। গরমে যে শুধু চাকুরীজীবী ও নানা কাজে বাইরে থাকা মানুষেরাই স্কিন প্রবলেমের শিকার হন তা নয় বরং সারাদিন ঘরে থাকা মানুষেরও ত্বকের সমস্যা হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যাই। আর এ থেকে মুক্তি পেতে চাই গরমকালে ত্বকের সঠিক যত্ন করা।

আজ আপনাদের জানাবো গরম কালে ত্বকের যত্ন নিতে গরমকালেরই খুব পরিচিত একটি ফল তরমুজের ব্যবহার। তরমুজ দিয়ে ঘরোয়াভাবে আপনি কিছু ফেসপ্যাক বানিয়েই আপনার ত্বকের যত্ন নিতে পারেন।

তরমুজের ফেসপ্যাক-

০১  সফট স্কিনের জন্যঃ
১ টেবিল চামচ তরমুজের রস ও ১ টেবিল চামচ দই নিয়ে একসাথে মিশিয়ে নিন। এবার এই প্যাকটি আপনার মুখে লাগিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট রাখুন। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে আপার মুখ ধুয়ে ফেলুন।

এই ফেসপ্যাকে উপস্থিত ল্যাকটিক অ্যাসিড ও এনজাইম আপনার ত্বক আলতোভাবে পরিষ্কার করবে এবং আপনার ত্বকের সফটনেস ধরে রাখবে।

০২ ড্রাই স্কিনের জন্যঃ
১ টেবিল চামচ তরমুজের রস ও ১ টেবিল চামচ মধু নিন। দুই উপাদান ভালোভাবে মিশান এবং আপনার ত্বকে লাগান। ২০ মিনিট এটি আপনার ত্বকে রাখুন এরপর হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

মধু আপনার ত্বকের গভীর লেয়ার অব্দি নারিশ করবে আর তরমুজ আপনার ড্রাই\শুষ্ক ত্বকের অভ্যন্তর থেকে প্রয়োজনীয় তেল উৎপন্ন করে ত্বক নরম ও কোমল রাখবে।

০৩ সেনসিটিভ ত্বকের জন্যঃ

সেনসিটিভ ত্বকের জন্য তরমুজের রস না নিয়ে বরং তরমুজ চটকে সেটা মধু দিয়ে মিশিয়ে আপনার ত্বকে লাগান। ত্বকে লাগানোর ২০ মিনিট পর আপনার মুখ স্বাভাবিক পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

তরমুজ আর মধুর কম্বিনেশন আপনার সেনসিটিভ ত্বক সব রকম ইনফেকশন আর ব্রণ থেকে রক্ষা করে। ত্বকের আর্দ্রতা  ধরে রাখে ও ত্বক সফট ও শাফল করে।

তরমুজ ফেসপ্যাক এজিং স্কিনের জন্যঃ

১ টেবিল চামচ তরমুজের রস ও ১ টেবিল চামচ পেস্ট করা আভাকাডো নিয়ে ভালোভাবে মিশান এবং আপনার মুখে এবং গলায় লাগান। ২০ মিনিট আপনার মুখে এটা রাখার পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

আভাকাডো ওমেগা৩ ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন সি ও ভিটামিন এ তে ভরপুর যা আপনার ত্বকের অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের পরিমাণ বাড়িয়ে ত্বকের পাওয়ারফুল অ্যান্টি-এজিং এর কাজ করে।

ব্রণের জন্য তরমুজের ফেস প্যাকঃ

তরমুজ থেকে রস বের করে ১ টেবিল চামচ পরিমাণ নিয়ে সেটার সাথে ১ টেবিল চামম কলা চটকে মিশিয়ে নিন। এটি পেস্ট আকারে বানিয়ে তা আপনার মুখে লাগিয়ে ৩০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। তরমুজ আপনার ত্বকে বাড়তি তেল আসা বন্ধ করে ও ত্বক পরিষ্কার রাখার মাধ্যমে ব্রণের প্রকোপ কমিয়ে দেই। আর কলার ভিটামিন বি ১২, বি৬ ও বি২ ত্বকের ব্রণের প্রদাহ বন্ধ করে ও ত্বকের রোমকূপের অতিরিক্ত ছিদ্র বন্ধ করে ত্বক সফট ও শাফল রাখে।

মনে রাখবেন গরম কালে এক স্লাইস তরমুজ কিংবা তরমুজের রস কেবল আপনার দেহের ক্লান্তি ও প্রয়োজনীয় পানির চাহিদায় মেটায় না বরং এটি আপনার ত্বকের জন্য ও কম উপকারী নয়। আপনি চাইলে এক স্লাইস তরমুজ খাওয়ার পাশাপাশি আপনার মুখের ত্বকে স্বাভাবিক ভাবে ম্যাসাজ করতে পারেন এতে আপনার ত্বকের সানবার্ন এর দাগ চলে যাবে আর আপনার ত্বক তার হারানো ফ্রেশনেস ফিরে পাবে।

original source: http://www.shajgoj.com/2015/03/12427/

আরো পোস্ট দেখুন

comments