কিভাবে শুরু করবেন ই-কমার্স ব্যবসা

“Branoo e-Commerce Writing Competition”

Branoo.com হচ্ছে বর্তমান সময়ে খুবই অল্প সময়ে অনলাইন ই-কমার্স ব্যবসায় জনপ্রিয়তা লাভ করার সুনাম অর্জনকারী একটি প্রতিষ্ঠানের নাম। যেকেহ সহজেই ব্র্যানোর মাধ্যমে ঘরে বসেই অর্ডার করতে পারবেন আপনার পছন্দের পণ্যটি ব্র্যানো ডট কমে গিয়ে। অনলাইন জগতে ব্র্যানো হতে পারে আপনার পছন্দের একটি নাম।

বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তি যেভাবে বাংলাদেশে এগিয়ে যাচ্ছে সেই দিন আর দূরে নয়, যখন আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় সকল পণ্য থেকে শুরু করে সবকিছুই কেনা- বেচার একমাত্র মাধ্যেম হবে মাউসের ক্লিকেই। বর্তমানে আমরা হয়তো অনেকদিন লক্ষ্যে করছি ই-কমার্স সেক্টর এগিয়ে যাওয়ার কথা, মানুষ চাই তৃপ্তিতেই সবকিছু, এক ক্লিকেই সব। ই-কমার্স হতে পারে সেই এমন একটি মাধ্যেম, সেখানে আপনি আপনার পছন্দের জিনিস কিনতে পারবেন সহজেই অনলাইনের ইন্টারনেটকে পুঁজি করে। আর কি চাই, যেখানে আপনি আপনার পছন্দের পণ্য পাচ্ছেন কোন জামেলা ছাড়াই, হতে পারে বাংলাদেশের মানুষের জন্য নতুন, কিন্তু পুরাতন হতে আর বেশী দিন নেই বলে আমি ব্যক্তিগত ভাবে মনে করি। আজকে আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করবো কিভাবে শুরু করতে পারেন আপনি আপনার ই-কমার্স ব্যবসা এই নিয়ে, আর কথা বাড়িয়ে লাভ নেই চলুন দেখি প্রথম স্টেপগুলো কি কি হতে পারেঃ

how-to-start-ecommerce-business

আপনাদের যে ২ টি প্রশ্ন প্রথমেই আসবে তা হচ্ছেঃ
• ই-কমার্স ব্যবসা করার জন্য কত টাকা খরচ হতে পারে?
• যেহেতু ই-কমার্স হচ্ছে একটি ইলেক্ট্রনিক মাধ্যেম, সেহেতু আমাকে কি কম্পিউটারের সবকিছু জানতে হবে?
হাঁ বন্ধুরা আপনাদের জন্য উত্তর আমি দিচ্ছি, প্রথমে আছি, ই-কমার্স ব্যবসার জন্য কি কি প্রয়োজন হতে পারে আপনার।

ই-কমার্স সাইট হচ্ছে অনলাইনের একটি অন্যতম সেক্টর যেখানে আপনি আপনার পণ্যর ডিসপ্লে করতে পারবেন একটি ওয়েবসাইটের মাধ্যেমে। এটি হবে আপনার পরিপূর্ণ একটি দোকান যেখান থেকে আপনার সাজানো জিনিস দেখে অন্যরা আপনার দোকানে অর্ডার করবে। ই-কমার্স সাইট বিক্রয় ডট কম কিংবা এখানেই ডট কম এর মত কোন মার্কেটপ্লেস না এটি একটি আপনার একান্তই নিজস্ব অনলাইন দোকান, যেখানে শুধুমাত্র আপনিই বিক্রেতা। আপনাদের বুঝার সুবিদার জন্য বলছি একবার হলেও ঘুরে আসুন নিচের কিছু জনপ্রিয় ই-কমার্স ওয়েবসাইটগুলোতে এবং সেই সাথে ধারণা নিন আপনার অনলাইন দোকানটি কেমন হবে।

১। Branoo.com
২। Akhoni.com
৩। kaymu.com.bd
৪। daraz.com.bd
৫। biponee.com

ডোমেইন নেম এবং হোস্টিং

ডোমেইন হচ্ছে আপনার সাইটের নাম, যেটির মাধ্যমে আপনি পণ্য বিক্রি করবেনঃ যেমনঃ google, facebook, youtube, branoo.com, sourcetune.com ইত্যাদি। আর হোস্টিং হচ্ছে যেখানে আপনার দোকানের জিনিসপত্রগুলো থাকবে অনলাইনের মাধ্যমে। সেই জন্য আপনাকে একটা জায়গা কিনতে হবে।

রেস্পন্সিভ (Responsive) ই-কমার্স সাইট

যেহেতু অকল্পনীয়ভাবে স্মার্ট ফোনের ব্যববার এখন বেড়েই চলছে আর সেকারনেই আপনার গ্রাহকরা যাহাতে তাদের মোবাইল ডিভাইসের মাধ্যমে পণ্য অর্ডার করতে পারে সেই জন্য আপনাকে যেতে হবে রেস্পন্সিভ সাইট তৈরিতে। যদি এসব মোবাইল ডিভাইস থেকে ভিজিট করা যায় তাহলে দেখবেন আপনার পণ্য বেচার সম্ভাবনাও বেড়ে যাবে অনেক গুণ সাথে ওয়েব সাইটে ভিজিটর পাবেন অনায়াসেই। কজনই বা কম্পিউটার ব্যবহার করেন করলেও বা দিনে কতক্ষণ, কিন্তু মোবাইল ব্যবহার হয়, ঘুমাতে না যাওয়ার আগ মুহূর্ত পর্যন্ত তাই আপনার অনলাইন দোকানের দরকার একটি ভালো রেসপন্সিভ ইকমার্স সাইট।

কম্পিউটারে দক্ষতা কতটুকু দরকার

আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, যদি আপনি ফেসবুক, গুগল ইত্যাদি সাইট ব্যববার করতে পারেনা, তাহলে আপনি একটি ই-কমার্স সাইটও চালাতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে আইটি এক্সপার্ট হতে হবে না।

শুরুতে যে খরচগুলো আপনার হতে পারে একনজরে তা দেখে নিনঃ

১। ডোমেইন এবং হোস্টিং রেজিস্ট্রেশনঃ ৩০০০-৬০০০ টাকার মধ্যে।
২। ই-কমার্স সাইট তৈরির জন্য খরচ হতে পারে রেস্পন্সিভ সাইটসহঃ ১৫০০০-২০০০০ টাকা, তবে দাম ভেরি করতে পারে আপনার ডিজাইন এবং চাহিদা অনুযায়ী, মনে রাখবেন ভালো কিছুর দাম সবসময় বেশী হবেই।
৩। হোস্টিং এবং ডোমেইন প্রতি এক বছর অন্তর অন্তর রিনিউ করতে হবে।

মজার বিষয় হচ্ছে অনলাইনে মাধ্যমকে ব্যবহার করে আপনি সহজেই আপনার পণ্যসহ আপনার অনলাইন দোকানকে মার্কেটিং করতে পারবেন খুব অল্প খরচেই। যা অন্যকোন কিছুতে সম্ভব হয় না। চিন্তা করে, ভালো একটা ব্যবসার প্লান এবং অনলাইনে আরও ভালো একটু স্ট্যাডি করে শুরু করে দিতে পারেন খুব সহজেই।

আরো পোস্ট দেখুন

comments