ওয়েব সাইট তৈরির আগে যে ১০ টি প্রশ্নের উত্তর আপনাকে জানতেই হবে

প্রিয় পাঠক মনে রাখবেন আমাদের যেকোন কিছু শুরু করার পূর্বে তার নির্দিষ্ট একটা প্ল্যান থাকা খুবই দরকার, এবং আমাদের সফলতার জন্য তা করতেই হবে সবাইকে। এবং সেই প্লান অনুযায়ী আমাদেরকে সেটা বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করতেই হবে যা না করলে কোনভাবেই চলবে না । চিন্তা করেন আপনি একটা বাড়ি তৈরি করবেন আর সেজন্য সু-নিদিষ্ট একটা বাড়ির প্লান তৈরি করতে হবে, ঠিক তেমনি করে একটা ওয়েব সাইট তৈরির ক্ষেত্রেও আগেও একটা প্লান তৈরি করতে হবে, তা না হলে ভালো ফলাফল পাওয়া সম্ভব নয় । একটা ওয়েব সাইট তৈরি করার জন্য কিছু বিষয় নিয়ে আপনাকে ভাবতে হবে, আর সেই বিষয় ভেবেই ওয়েব সাইটা তৈরি করতে হবে । আপনি যদি এখন একটি ওয়েবসাইট তৈরি করলেন কোন একটি সুনির্দিষ্ট প্ল্যান ছাড়া এবং তারপর এর পিছনে ইনভেস্ট করলেন কিন্তু সফল হতে পারলেন না। এক্ষেত্রে আপনার সফল না হওয়ার একমাত্র কারণ হচ্ছে আপনি ওয়েবসাইট তৈরি করার আগে সুনির্দিষ্ট প্ল্যান করেননি তাই আপনার এই অবস্থা। একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার আগে কি কি প্ল্যান করা দরকার সেই সব ধরণের উল্লেখযোগ্য কিছু ধারনা এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে আমি আপনাদেরকে দিব যা না জানলেই নয় । ওয়েবসাইট তৈরি করার পূর্বে নিজেকে নিজেই প্রশ্ন করুন, কেন আমি ওয়েবসাইটি করবো? কার জন্য করবো? আর এই প্রশ্নের উত্তরগুলো পাওয়ার জন্য আপনি নিচের ১০ বিষয় জানাতে ভুল করবেন না, যা আপনার জন্য অনেকবেশি গুরুত্বপূর্ণ।

10 Things You have Know

১। আপনার ওয়েবসাইটের লক্ষ ও উদ্দেশ্য কি ?

যেকোন ওয়েব সাইট তৈরি করার আগে আপনাকে যে প্রশ্নটি করতে হবে তা হচ্ছে, ওয়েব সাইটির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য কি? । লক্ষ এবং উদ্দেশ্য ছাড়া যেকোন কাজ কোনভাবেই সফলতা পাওয়া যায়না । আর সেকারণেই আপনাকে ওয়েব সাইট তৈরি করার আগেই তা নির্ধারণ করতেই হবে, যা না করলেই নয়। করেন একটাই আপনি যদি কোন লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য ছাড়া একটা ওয়েব সাইট তৈরি করেন এবং সেটার পিছনে আপনি সময় ব্যয় করলেন এবং একিই সাথে টাকাও খরচ করলেন , ওয়েব সাইট এর ডিজাইন, ডেভেলপমেন্ট করালেন, এবং একটা পর্যায়ে এসে আপনি চিন্তা করছেন, এই সাইটি দিয়ে আপনি কি করবেন? তাই কিছু করার আগে আপনার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নির্ধারণ করে কাজ করুণ এবং সেকারণেই আপনি সফলটা পাবেন খুব সহজেই, যার জন্য আপনাকে বেশি একটা সময় অপেক্ষা করতে হবে না। সুতরাং লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য যেকোন কাজের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

২। অনলাইন কিংবা অফলাইনে ওয়েবসাইট নিয়ে মার্কেটে আপনার টার্গেট কি ?

আপনি যেকোন কাজ শুরু করার আগে অবশ্যই এর মার্কেট নির্ধারণ করে আপনার কাজ শুরু করবেন আর সেই জন্য আপনার এর মার্কেটিং গোল এবং টার্গেট কি সেটা আপনাকে বুঝতে এবং জানতে হবে। আর মার্কেটে আমাদের টার্গেট বুঝে আমাদেরকে কাজে মনোযোগ দিতে হবে এবং সেই অনুযায়ী কাজ চালিয়ে যেতে হবে। চাহিদা অনুযায়ী ওয়েব সাইটটিও হতে হবে সুন্দর এবং Gorgeous একটা লুক যা দেখলেই যাহাতে সবার নজরে আসে এবং সেই সাথে রেডি করতে হবে ভালো কনটেন্ট।

৩। অন্যরা আপনাকে যাহাতে গুগোলে খুঁজে তা যদি আপনি চেয়ে থাকেন ?

বলে রাখা ভালো আপনাকে অবশ্যই এই প্রশ্নটা সম্পর্কে খুবই সুস্পষ্ট হতে হবে । আমার দেখা অনেক ওয়েব সাইটের মালিক আছেন তারমধ্যে অনেকেই এই প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেন না । আর এটাও অপ্রিয় সত্য যে ওয়েবসাইটের মালিকেরা জানেনি না যে এসইও ( সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন ) বলে কিছু একটা আছে, যা আপনার ওয়েব সাইটটিকে গুগলে খুজে পেতে সহায়তা করবেন এবং তার মাধ্যমে সাইটে ভিজিটর আসতে পারে।

৪। আপনি কি চান আপনার ভিজিটর আপনাকে ফিডব্যাক প্রদান করুক ?

একটা ওয়েব সাইটের জন্য ভিজিটরের ফিডব্যাক অনেক গুরুত্বপূর্ণ । একজন ভিজিটর যখন আপনার ওয়েব সাইটে ভিজিট করবে তখন তার ভালোলাগা মন্দলাগা সবকিছু তারা তাদের মতামতের মধ্যমে জানাতে পারে এবং সেকারণেই একটা ফিডব্যাক ফরম যুক্ত করে দিতে হবে । আর তাদের ফিডব্যাক থেকে আপনি আপনার ওয়েব সাইটির সফলতা এবং ব্যর্থতা খুব সহজেই জানতে পারবেন ।

৫। নিশ্চিত করুন আপনার ওয়েবসাইটের ডিজাইন কাকে দিয়ে করাবেন ?

এমন কাউকে দিয়ে আপনার ওয়েবসাইটটি ডিজাইন করাবেন না, যাহাতে ওয়েব সাইটটি ভিজিটররা দেখা মাত্র দৌরে পালিয়ে যায়। এবং কাউকে দিয়ে ডিজাইন করাবেন, যে আপনার কাজ বুঝবে এবং আপনি কিভাবে চাচ্ছেন জানবে, অবশ্যই মনে রাখবেন এবং কাউকে দিয়ে ওয়েব ডিজাইন করাবেন না, যে কোনভাবেই ওয়েব ডিজাইনে অভিজ্ঞ নয়, একটা ভালো বাড়ির ডিজাইন করতে গেলে যেমন একজন ভালো আর্কিটেক্ট দরকার ঠিক তেমনি একটা ভালো মানে ওয়েব সাইট ডিজাইন করতে গেলে দরকার একজন ভালো মানের ওয়েব ডিজাইনার।

৬ । ওয়েব সাইটটি তৈরি করার জন্য আপনার সময় হবে কিনা ?

একটি ওয়েব সাইট তৈরি করার জন্য আপনার সেই সময় আছে কিনা নেই তা নিজেকেই প্রশ্ন করুণ, কারণ তা না হলে আপনি ডিজাইনারের জন্য সময় দিবেন কিভাবে। আপনার পরিষ্কার ধারনা এবং স্বচ্ছ জ্ঞান থাকতে হবে একটা ওয়েব ডিজাইন করতে কত সময় লাগতে পারে, এবং সেই অনুযায়ী আপনি আপনার ডিজাইনারকে চিন্তা করে সময় দিয়ে ওয়েব সাইটটি ডিজাইন করাবেন।

৭। একটা ওয়েব সাইট পরিচালনা করার জন্য যে খরচ দরকার তা আপনি বহন করতে পারবেন কি না ?

একটা ওয়েব সাইট তৈরি করার পর এর আনুসাঙ্গিক অনেক ধরণের খরচ থাকবে পারে যেমন, পরবর্তী বছরের জন্য ডোমেইন রেজিঃ, হোসটিং রেজিঃ, এসইও, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং ইত্যাদি। যার জন্য আপনার অনুমানিক একটা পরিমাণ টাকা দরকার, এবং তা আপনি আসলেই বহন করতে পারবেন কিনা তা আপনাকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। একটা ওয়েব সাইট তৈরি করার পর যদি বন্ধ করতে হয়, তাহলে তৈরি করবেনই বা কেন?

৮। ওয়েবসাইট নিয়ে আপনার একটি সুনির্দিষ্ট কর্ম পরিকল্পনা আছে কিনা ?

মনে রাখবেন আপনি যদি প্ল্যান ছাড়া কোন কিছু করেন তাহলে আমি নিচ্ছিত আপনি নিচের প্রশ্ন গুলোর সম্মুকা-সম্মুখিন হবেন এবং তখন কোন প্রশ্নের উত্তর খুব্জে পাবেন না, তাই আগে থেকে সুনির্দিষ্ট কর্ম পরিকল্পনা করে কাজ শুরু করুণ, যাহতে কাজের অর্ধেক অবস্থায় গিয়ে নিচের প্রশ্নগুলো নিয়ে আপনাকে জামেলাই পরতে না নয়।

১. কিভাবে কি করবেন?

২.কোথা থেকে শুরু করবেন ?

৩. কিভাবে সফল হবেন ?

উপরের প্রশ্ন গুলো উত্তরের জন্য তখন আপনার কর্ম পরিকল্পনার প্রয়োজন হবে সুতরাং সেজন্য আপনাকে আগেই কর্ম পরিকল্পনা করে কাজ আরাম্ভ করতে হবে ।

৯। আপনি কি সঠিক ওয়েব-হোস্ট  নির্ধারণ করেছেন কিনা ?

আপনাকেই অবশ্যই একটি ভালো ওয়েব-হোস্ট নিতে হবে আপনার ওয়েব সাইটির জন্য । কারণ যদি আপনি ভালো ওয়েব-হোস্ট না নেন তাহলে আপনার সাইট স্লো হতে পারে, মাঝে মাঝে ডাউন থাকতে পারে এবং সাইটটি ডাউন কিংবা স্লো থাকলে আপনার ভিজিটররা আপনার ওয়েব সাইটের প্রতি বিরূপ প্রতিক্রিয়া জন্মাবে এবং আপনার ওয়েব সাইটটি তারা অপছন্দ করবে, সুতরাং যাহাতে তারা আপনার ওয়েব সাইটটি অপছন্দ না করে সেই জন্য আনাকে অবশ্যই অবশ্যই ভালো এবং সঠিক ওয়েব-হোস্টকে বেছে নিতে হবে।

১০। আপনি কি Responsive ওয়েব ডিজাইনের কথা ভাবছেন কিনা ?

বর্তমান মার্কেটে রেস্পন্সিভ ওয়েব সাইট ডিজাইন অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ । রেস্পন্সিভ ডিজাইন উপকারিতা হচ্ছে, যেকোন ডিভাইসে যেমনঃ মোবাইল, ডেসকটপ, ল্যাপটপ, ট্যাব ইত্যাদির মাধ্যমে আপনি আপনার ওয়েব সাইটটি সুন্দর একটা ভিউ দেখতে পাবেন যা নন রেস্পন্সিভ ডিজাইনে দেখা সম্ভব নয় । তাই একটি ভালো মানের এবং সবার গ্রহণযোগ্য ওয়েব সাইট মানেই রেস্পন্সিভ ওয়েব ডিজাইন।

আপনাদের যেকোন প্রশ্ন থাকলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন ধন্যবাদ।

আরো পোস্ট দেখুন

comments