এক বছর সর্বোচ্চ ওয়ারেন্টি নিশ্চিত করেছে বিসিএস

বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি নীতিমালায় ওয়ারেন্টির সময়সীমা নিয়ে এত বিভ্রান্তির পর পুনরায় বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়েছে আবার নতুন করে। এর ফলে পুরোনো বিজ্ঞপ্তিকে আবার নতুন করে পাঠিয়ে ওয়ারেন্টির সময়সীমা সর্বোচ্চ এক বছর নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস)।

এই বিজ্ঞপ্তিটি বৃহস্পতিবার আবার পুরনোতা বাদ দিয়ে সম্পূর্ণ নতুন করে সমিতির সকল সদস্যকে পুনরায় পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে। তাছাড়াও বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির (বিসিএসের) ৮টি শাখায় চেয়ারম্যানকে উল্লেখ করে তা সঠিকভাবে বাস্তবায়নের জন্য বলা হয়েছে।

সেখানে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির মহাসচিব নজরুল ইসলাম মিলন বলেছেন, হয়তো ইতিমধ্যেই বিসিএস এর ওয়ারেন্টি’ ২০১৪ বিষয়ে আপনারা জেনেছেন এবং তা গত ৩০ নভেম্বর মাসে পাঠানো হয়েছিল। আমার বিশ্বাস আমরা সবাই বর্তমানে হার্ডওয়্যার প্রোডাক্ট ব্যবসায় সফলভাবে উন্নয়নে এর গুরুত্ব ভালো করেই অনুভব করতে পারছি খুব সহজেই।

বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি

তিনি আরও উল্লেখ করেন, তাই এখন থেকে এটি সকলকে মেনে চলার জন্য পদক্ষেপ নেয়া এবং প্রচার করা বিসিএস এর অনিবার্য দায়িত্ব হয়ে পড়েছে। তাই আপনাদের জন্য আবারও রেফারেন্স হিসেবে এই নীতিমালাটি পাঠানো হচ্ছে।

তার আগে, গত ৩০ নভেম্বর ২০১৪ ইং তারিখে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির অফিস থেকে সদস্যদের পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে ওয়ারেন্টি হবে সর্বোচ্চ এক বছর আর গণমাধ্যমে প্রকাশের জন্য বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে ওয়ারেন্টি হবে সর্বনিম্ন একবছর।

এই কারণে নীতিমালার প্রধান নীতি ওয়ারেন্টির সময়সীমা নিয়ে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি সদস্যদের মধ্যে নানা ধরণের বিভ্রান্তি তৈরি হয়। এবং এর ফলে অন্যদিকে কম্পিউটারের পণ্যে ওয়ারেন্টি নিয়ে বিশৃঙ্খলা কাটাতে নীতিমালা তৈরি করে বেকায়দায় পড়ে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি।

এনিয়ে গত দুইদিনে ব্যাপক সমালোচনায় পড়ে সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ। যার প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার এই অফিস বিজ্ঞপ্তিটি পুনরায় পাঠানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে প্রধান নীতিমালাগুলো হচ্ছে, আমদানিকারক, পরিবেশক, সরবরাহকারী ও খুচরা ব্যবসায়ীরা ক্রেতাকে সব্বোর্চ এক বছরের ওয়ারেন্টি প্রদান করতে পারবেন।
এছাড়াও অন্যান্যর মধ্যে রয়েছে, এক বছরের বেশি হলে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির  অনুমোদন গ্রহণ, আমদানিকারক বা সরবরাহকারী থেকে খুচরা ব্যবসায়ীকে ১৩ মাসের একটি ওয়ারেন্টি দেয়া।

বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির এই নীতিমালা গত ১ ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হবে বলে উল্লেখ করে বিজ্ঞপ্তিতে বিসিএসের (বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির) মহাসচিব নজরুল ইসলাম মিলন স্বাক্ষর করেছেন।

আরো পোস্ট দেখুন

comments