উইন্ডোজ ১০ এ যে ৫টি ইউনিক ফিচারস রয়েছে

অনেক জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে বেশ আগেই উইন্ডোজ ১০ এর প্রিভিভ ভার্শন চলে এসেছে । লেটেস্ট স্টার্ট মেনুসহ আরও অনেক দারুন ফিচারস এর জন্য সবাই এটিকে অনেক পছন্দ করেছে । এই টিউনে আমি উইন্ডোজ ১০ এর ৫ টি ইউনিক ফিচারস সম্পর্কে তুলে ধরবো । তাহলে চলুন দেখেনেই উইন্ডোজ ১০ এ কোন ৫ টি ইউনিক ফিচারস থাকছে  ।

 

 

বেশি ব্যবহারযোগ্য স্টোরেজ

1

মাইক্রোসফট তাদের প্রত্যেক উইন্ডোজ এর ভার্শনে ইউনিক কিছু স্পেসিফিকেশন রেখেছে । আর পিসিতে উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ইউজের জন্য সব ভার্শন গুলোতে নিজেস্ব ম্যাক্সিমাম স্টোরেজ ক্যাপাসিটি প্রয়োজন ছিল । আর এই প্রথম মাইক্রোসফট তাদের উইন্ডোজ ১০ কে ডেভলপ করেছে ডিভাইসের সব চেয়ে কম জায়গা ব্যবহার করে রান করার জন্য ।  উইন্ডোজ ১০ এর সিস্টেম ফাইলকে এমন ভাবে কমপ্রেস করা হয়েছে যাতে করে ৩২ বিটে ১.৫ জিবি এবং ৬৪ বিটে ২.৬ জিবির কাছাকাছি স্টোরেজ ইউজার ব্যবহারের জন্য বেশি পাবে ।

 

 

অধিক আস্থাযোগ্য পাসওয়ার্ড

2

ইতিহাসে এই প্রথম মাইক্রোসফট ফিডোর মাধ্যমে অ্যাম্বিশন টেকনিজ ব্যবহার করেছে । এটা শুধু মাইক্রোসফট এর সার্ভিসই প্রদান করবে না বরং স্যামসাং, এলজি, লেনেভো এবং গুগোল এর সাথেও কানেক্ট করতে সক্ষম । ফিডো ইউজের জন্য সনাক্তকরনের ক্ষেত্রে ভয়েস, আইআরআইএস, ফিঙার প্রিন্ট এবং ফেস ব্যবহার হবে । তাই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে প্রয়োজনীয় ফাইলের নিরাপত্তার  প্রাদানের ক্ষেত্রে আরও বেশি আস্থা পাওয়া যাবে ।

 

 

স্পার্টান ব্রাউজার

3

পুর্বের সব উইন্ডোজ গুলোর ডিফল্ট ইন্টারনেট ব্রাউজার ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার নিয়ে সবাই অসন্তুষ্ট ছিল । আর সেটা কাটিয়ে উঠতে মাইক্রোসফট তাদের নতুন উইন্ডোজ ১০ এ ব্যবহার করেছে নতুন স্পার্টান ব্রাউজার । স্পার্টান ব্রাউজারের দারুন ফিচারস রয়েছে । সহজেই গুরুত্বপুর্ন পেজ এবং পয়েন্ট মার্ক করা যাবে, নিজের করা কাজ গুলো শেয়ার করা যাবে, অফলাইনে পড়ার জন্য পেজ সেভ করে রাখাসহ থাকছে আরও অনেক কিছু ।

 

 

পার্সোনাল অ্যাসিস্ট্যান্ট করটানা

4

 

করটানা হচ্ছে মাইক্রোসফট এর ডেভলপ করা পার্সোনাল অ্যাসিস্ট্যান্ট । এটা অনেক গুরুতপুর্ন ফিচারস যা উইন্ডোজ ১০ এ প্রি-ইন্সটল করা আছে । যে কোন কাজের বিষয়ে ভয়েস কমান্ড ইউজ করে করটানাকে প্রশ্ন করা যাবে এবং করটানা সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজে দিবে । আমি ব্যক্তিগত ভাবে মাইক্রোসফট এর এই ক্রিয়েটিভ চমৎকার ফিচারে খুবই মুগ্ধ হয়েছি ।

 

 

দ্রুত লেটেস্ট আপডেট ইন্সটল

5

এটি উইন্ডোজ ১০ এর আরেকটা ফিচারস যার মাধ্যমে লেটেস্ট আপডেট আরও অনেক দ্রুত ইন্সটল করা যাবে । মাইক্রোসফট এর আগের উইন্ডোজ গুলোর আপডেট প্রায় সমকক্ষ ছিল এবং বিশেষ কোন পরিবর্তন পাওয়া যেত না । কিন্তু আশা করা যাচ্ছে উইন্ডোজ ১০ এর ক্ষেত্রে আপডেটের বিষয়টি অনেক উন্নত করা হয়েছে । তাই উইন্ডোজ ১০ এর লেটেস্ট আপডেট গুলোতে ইউজারদের জন্য আরও বেশি সুবিধা করা হবে ।

আজ এই পর্যন্তই । পরবর্তি আবারও হাজির হবো প্রযুক্তি বিষয়ক আরও অনেক তথ্য নিয়ে । আর হ্যাঁ টিউন কেমন হয়েছে জানাতে ভুলবেন না, আপনাদের উৎসাহই আরও ভালো টিউন উপহার দেয়ার অনুপ্রেরণা যোগাবে । ফেসবুকে আমি

আরো পোস্ট দেখুন

comments

2 thoughts on “উইন্ডোজ ১০ এ যে ৫টি ইউনিক ফিচারস রয়েছে

  1. এভিনিউ সাংমা

    - Edit

    এই টিউনটি না পড়ার আগে জানা ছিল না, ধন্যবাদ আপনার সুন্দর একটি Informative টিউনের জন্য।

Comments are closed.