উঁকুন দূর করার ৫টি সহজ উপায়

increase-hair-volume-quickly

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে চুল ও মাথার ত্বকের সবচেয়ে বিরক্তিকর এবং যন্ত্রণাদায়ক সমস্যা হচ্ছে উঁকুন। যাদের মাথায় উঁকুন বাসা বেঁধেছে কেবল সেই জানে এর যন্ত্রণা কতোখানি। উঁকুনের সমস্যা একবার শুরু হলে মাথা থেকে দূর করা ভীষণ কষ্টকর হয়ে যায়।

বিভিন্ন ধরনের কেমিক্যাল ব্যবহার করে উঁকুন দূর করতে পারলেও চুল হয় রুক্ষ্ম। এমনকি চুলপড়া শুরু করে ভয়াবহভাবে। যদি ঘরোয়াভাবেই উঁকুনের বংশকে নির্বংশ করা যায়্। তবে এতে করে চুলের স্বাস্থ্যও ঠিক থাকবে। সঙ্গে উঁকুনের সমস্যাও দূর হবে। আসুন তবে দেখে নিন কিভাবে উঁকুনের সমস্যা থেকে রেহাই পাবেন তার কিছু কার্যকর উপায়।

জলপাই তেলের (অলিভ অয়েল) মাধ্যমে :
উঁকুনের সমস্যা এক রাতে শেষ হওয়ার নয়। আপনাকে ধৈর্য ধরতে হবে। অলিভ অয়েল উঁকুন তাড়াতে বেশ কার্যকর। অলিভ অয়েলের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান মাথার ত্বককে উঁকুনের হাত থেকে রক্ষা করে। এজন্য আপনাকে সারা রাত চুলে অলিভ অয়েল লাগিয়ে রাখতে হবে। একটি কাপড় দিয়ে চুল মুড়িয়ে রাখুন। এতে মাথার ত্বকে একটি ভাপ সৃষ্টি হবে। সকালে শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। এতে অনেকাংশে উঁকুন চলে যাবে।

হেয়ার ড্রায়ার ও হেয়ার স্ট্রেইটনারের ব্যবহার:
উকুন মাথায় গরম ভাপ সহ্য করতে পারে না। আপনি হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকোলে চুল গোড়া থেকে গরম হবে। এতে করে চুলে উঁকুন থাকতে পারবে না। তখন অনায়েসে চুল আঁচড়ে উঁকুন দূর করতে পারবেন। হেয়ার স্ট্রেইটনারও চুল গরম করতে বেশ কার্যকর। মনে রাখবেন, হেয়ার ড্রায়ার ও হেয়ার স্ট্রেইটনার বেশি ব্যবহার করবেন না এবং করলেও প্রথমে চুলের সুরক্ষার কথা বিবেচনায় রেখে তবে করবেন।

হেয়ার স্টাইলার জেল ও পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার:
আশ্চর্যজনক হলেও সত্যি যে হেয়ার স্টাইলার জেল ও পেট্রোলিয়াম জেলি চুলকে উঁকুন মুক্ত রাখতে বেশ কার্যকর একটি জিনিস। চুলের গোড়ায় ভালো মতো হেয়ার স্টাইলার জেল ও পেট্রোলিয়াম জেলি মাখিয়ে রাখুন ৩০ মিনিটের মতো। এরপর ভালো করে শ্যাম্পু করে ফেলুন। উঁকুন দ্রুত দূর হবে।

মেয়োনেজ:
মেয়োনেজে অ্যান্টিফাঙ্গাল এলিমেন্ট থাকে, যা মাথার ত্বকে পৌঁছে উঁকুন মরতে সহায়তা করে। পুরো চুলে ভালো করে মেয়োনেজ মেখে ঘুমোতে যান। মাথায় শাওয়ার ক্যাপ পড়তে ভুলবেন না। সকালে উঠে শ্যাম্পু করে ফেলুন। চুলের উঁকুন সমস্যা দূর করতে পারবেন।

উঁকুনের ডিম দূর করবে ভিনেগার:
উঁকুন মেরে ফেলা সহজ হলেও উঁকুনের ডিম চুলে রয়ে যায়, যা পরবর্তীতে আবার উঁকুন হওয়ার সম্ভাবনা বাড়িয়ে তোলে। তাই এ উঁকুনের ডিম দূর করতে আপনার রান্না ঘরের ভিনেগারকে কাজে লাগান। এক্সপার্টরা বলেন, ভিনেগারের অ্যাসিটিক অ্যাসিড চুলের সাথে উঁকুনের ডিমের লেগে থাকার আঠা নষ্ট করে দেয়। এতে ডিমগুলো চুল থেকে ঝরে পড়ে। সারারাত ভিনেগার মাখিয়ে রাখুন চুলে। সকালে শ্যাম্পু করুন চুল আঁচড়িয়ে। চুলে উঁকুনের ডিম দেখতে পাবেন না।

লেখাটি পছন্দ হইলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।
নিয়মিত সুন্দর সুন্দর টিপস পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ এ অ্যাক্টিভ থাকুন।

আরো পোস্ট দেখুন

comments